1. »
  2. আইন আদালত

ডাকাতিকালে গুলি করে হত্যা: ডাকাত সর্দারের যাবজ্জীবন

বৃহস্পতিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২০ ০৪:৫০ পিএম | আপডেট: বৃহস্পতিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২০ ০৪:৫০ পিএম

ডাকাতিকালে গুলি করে হত্যা: ডাকাত সর্দারের যাবজ্জীবন

 বরিশালের বাকেরগঞ্জে ডাকাতি করার সময় গুলি করে এক ব্যক্তিকে হত্যার মামলায় আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সর্দার হাবিবুর রহমান প্রকাশকে (৩৮) যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে আসামিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মামলার অপর ৮ আসামি বেকসুর খালাস পেয়েছেন। বরিশালের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুহাম্মদ মাহবুব আলম বুধবার বিকালে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন।

প্রকাশ জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার পাদ্রিশিবপুর ইউনিয়নের পশ্চিমপাড় এলাকার সুলতান দফাদারের ছেলে।
আদালতের বেঞ্চ সহকারী রেজাউল ইসলাম জানান, ২০০৬ সালের ১৫ নভেম্বর রাত দেড়টায় পাদ্রিশিবপুর পশ্চিমপাড় এলাকার স্ট্যানলী গোমেজের ঘরের দরজা ভেঙে একদল দুর্বৃত্ত ভেতরে ঢুকে স্বর্ণালংকারসহ মূল্যবান মালামাল লুট করে। স্ট্যানলী গোমেজের পরিবারের সদস্যদের ডাক-চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে গেলে দুর্বৃত্তরা গুলি করতে করতে পালিয়ে যায়। তখন শাহ আলম নামে এক ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে নিহত হন।

এ ঘটনায় স্ট্যানলী গোমেজ বাদী হয়ে পরদিন ১৬ নভেম্বর বাকেরগঞ্জ থানায় ডাকাত দলের ১১ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা করেন। ২০০৭ সালের ১৫ জুন বাকেরগঞ্জ থানার তৎকালীন উপ-পরিদর্শক আতাউর রহমান ১১ আসামির বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। মামলার বিচার চলাকালে ২ আসামির মৃত্যু হয়। ২২ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ডাকাত দলের সর্দার হাবিবুর রহমান ওরফে প্রকাশকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং অন্য ৮ জনকে বেকসুর খালাস দেন আদালত। রায় ঘোষণার পর প্রকাশকে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।