1. »
  2. প্রবাস

কানাডায় মাতৃভাষা চর্চা বিষয়ক ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠিত

বিডি প্রেস ডেস্ক রিপোর্ট সোমবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ ০৭:০৩ পিএম | আপডেট: সোমবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ ০৭:০৩ পিএম

কানাডায় মাতৃভাষা চর্চা বিষয়ক ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠিত

কানাডার ক্যালগেরিতে আলবার্টার প্রথম বাংলা অনলাইন পোর্টাল 'প্রবাস বাংলা ভয়েস' এর আয়োজনে প্রধান সম্পাদক আহসান রাজীব বুলবুল এর সঞ্চালনায় 'প্রবাসে মাতৃভাষার চর্চা ও গণমাধ্যমের ভূমিকা' শীর্ষক এক ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনায় প্রধান অতিথি ছিলেন একুশে পদকপ্রাপ্ত কবি অসীম সাহা, প্রধান বক্তা ছিলেন প্রবাসী সাংবাদিক শওগাত আলী সাগর। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কলামিস্ট, উন্নয়ন গবেষক ও সমাজতাত্ত্বিক বিশ্লেষক মাহমুদ হাসান।
আলোচনায় সবাই প্রবাসে মাতূভাষা চর্চা কে আরও সুদৃঢ় করতে এবং মাতৃভূমির সাথে পরবর্তী প্রজন্মের মেলবন্ধন তৈরি করতে ভাষা শিক্ষার গুরুত্ব তুলে ধরেন। এছাড়াও, প্রবাসে বাংলাভাষার প্রসারে গণমাধ্যমের ভূমিকা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। আলোচনায় অংশ নেন মোহাম্মদ বাতেন, মোহাম্মদ কাদির, আবদুল্লা রফিক, রুপক দত্ত এবং কিরন বনিক শংকর।

একুশে পদক বিজয়ী কবি অসীম সাহা আয়োজকদের প্রতি অশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশের পাশাপাশি সর্বস্তরে বিশুদ্ধ বাংলা চর্চার প্রয়োজনীয়তার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। ঢাকায় স্থাপিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইন্সটিটিউট কে একটি সত্যিকারের গবেষণাধর্মী প্রতিষ্ঠানে পরিণত করার লক্ষ্যে সবাই একযোগে কাজ করার জন্য সকলের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান। তিনি আরও বলেন, একুশের গৌরবগাঁথায় সমৃদ্ধ হয়েই এগিয়ে যেতে হবে বাঙালি জাতিকে।

মাতৃভাষা ও বাংলা সংস্কৃতির অবমাননা কিভাবে জাতীয় প্রগতির অন্তরায় হতে পারে, সে বিষয়েও তিনি বিশদ আলোচনা করেন। মানসম্পন্ন গবেষণা কর্মের মাধ্যমে বাংলা ভাষার আন্তর্জাতিক মান বজায় রাখতে তিনি সরকার, সংশ্লিষ্ট বিভাগ ও লেখকদের প্রতি আহবান জানান।
 
প্রবাসী সাংবাদিক এবং নতুনদেশ পত্রিকার প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগর তার বক্তব্যে প্রবাসে বাংলা চর্চার গুরুত্ব তুলে ধরে মাতৃভূমির সাথে পরবর্তী প্রজন্মের সেতুবন্ধন তৈরীতে গুরুত্বারোপ করেন।

কলামিস্ট, উন্নয়ন গবেষক ও সমাজতাত্ত্বিক বিশ্লেষক মোঃ মাহমুদ হাসান তার স্বাগত বক্তব্যে প্রবাসে মাতৃভাষার চর্চা ও গণমাধ্যমের ভূমিকা" শীর্ষক ভারচুয়াল আলোচনার পটভূমি ও বিষয়বস্তুর সার-সংক্ষেপ উপস্থাপন করেন। ভাষা আন্দোলন, স্বাধীনতা যুদ্ধ সহ বাংলাদেশের সকল অধিকার আদায়ের সংগ্রামে আত্ন-উৎসর্গকারী শহীদদের প্রতি তিনি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

অ্যাসোসিয়েশন অফ প্রফেশনাল ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড জিও সাইন্টিস্ট অফ আলবার্টার ক্যালগেরি শাখার কোষাধক্ষ্য প্রকৌশলী মোহাম্মদ কাদির বলেন, 'একুশের পথ ধরেই আমরা ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশকে স্বাধীন করেছি। একুশের চেতনা, ভাষা আন্দোলনের ভূমিকা এখনো ফুরিয়ে যায় নি। প্রবাসে আমাদের মাতৃভাষার চর্চাকে অব্যাহত রাখতে হবে'।

বাংলাদেশ কানাডা এসোসিয়েশন এর প্রাক্তন সভাপতি আবদুল্লা রফিক বলেন,'একুশের চেতনা অবিনশ্বর, যা আমাদের বাঙালি জাতি সত্ত্বার অবিচ্ছেদ্য অংশ, একুশ বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতিকে বিশ্বদরবারে তুলে ধরার অনুপ্রেরণা'l

'প্রবাসে পারিবারিক ও সামাজিক জীবনেও আমাদের মাতৃভাষার চর্চা বাড়াতে হবে। শুরু করতে হবে নিজের পরিবার থেকে এবং অন্য সংস্কৃতিতেও তা ছড়িয়ে দিতে হবে'l

সিলেট অ্যাসোসিয়েশন অফ ক্যালগেরির সভাপতি রূপক দত্ত বলেন, 'পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার ভ্রান্ত দ্বিজাতিতত্ত্ব বা ধর্মীয় সাম্প্রদায়িকতার বিপরীতে অসাম্প্রদায়িক চেতনা বিস্ফোরিত হয় এই ভাষা আন্দোলনের মধ্য দিয়েই। বাংলাদেশের সকল আন্দোলনের মূলে ছিল এই ভাষা আন্দোলন'।